সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:২৭ পূর্বাহ্ন

চিকিৎসার জন্য বিদেশ যেতে চান খালেদা জিয়া

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশের সময়ঃ সোমবার, ১০ আগস্ট, ২০২০
  • ৫৯ জন দেখেছেন
ছবি : ডয়চে ভেলে

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া প্রয়োজন হলে হাঁটুর চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে যেতে চান৷ আর তার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করা হবে৷

কারণ এই করোনায় তার কোনো ‘অ্যাডভান্স’ চিকিৎসা হয়নি বলে তার চিকিৎসক, আইনজীবী এবং দলীয় নেতারা জানিয়েছেন৷

খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত করে গত ২৫ মার্চ সরকার তাকে নির্বাহী আদেশে ছয় মাসের জন্য মুক্তি দেয়৷ তার এই মুক্তির মেয়াদ শেষ হবে ২৪ সেপ্টেম্বর৷

কিন্তু খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক দলের সদস্য ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন জানান, ‘‘মুক্তির সময় খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা যেমন ছিলো তেমনই আছে৷ কোনো উন্নতি হয়নি৷ করোনার কারণে তিনি মুক্তির পর শুরুতে আইসোলেশনে ছিলেন৷ এখন তার চিকিৎসকেরা মাঝে মধ্যে বাসায় গিয়ে তাকে দেখছেন৷ কিন্তু তাকে বিএসএমইউর চিকিৎসকেরা যে পরামর্শ দিয়েছেন তা শুরু সম্ভব হয়নি করোনার কারণে৷’’

করোনা এখনো চলমান৷ কবে শেষ হবে ঠিক নেই৷ আর এই পরিস্থিতিতে তার পুরো চিকিৎসা শুরুও সম্ভব নয় বলে মনে করেন তিনি৷ তার মতে অ্যাডভান্স চিকিৎসার জন্য অ্যাডভান্স সেন্টার দরকার৷ সেটা দেশে ও হতে পারে, বিদেশেও হতে পারে৷

বিএনপিসহ রাজনৈতিক মহলে আলোচনা চলছে খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করা হবে কিনা৷ খালেদা জিয়া দুইটি শর্তে মার্চে মুক্তি পেয়েছেন৷ এক. বাসায় থেকে দেশেই চিকিৎসা করাবেন৷ দুই. দেশের বাইরে যেতে পারবেন না৷

দুই সপ্তাহ আগে খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করেছেন, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন৷ তিনি জানান, ‘‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ভালো নয়৷ আর তার হাঁটুর চিকিৎসাটাই এখন গুরুত্বপূর্ণ৷ সেই চিকিৎসা দেশে সম্ভব না হলে তিনি দেশের বাইরে যেতে চান৷ তিনি দেশেই চিকিৎসা করাতে চান৷ কিন্তু যেহেতু তার হাঁটুর চিকিৎসা আগে দেশের বাইরে হয়েছে তাই এক সপ্তাহের জন্য দেশের বাইরে যেতে পারেন৷’’

আর এখন যেহেতু করোনার কারণে তার চিকিৎসা শুরু সম্ভব হচ্ছে না৷ তাই মুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই সরকারের কাছে মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করা হবে বলে জানান মাহবুব উদ্দিন খোকন৷

একই কথা বলেন তার আইনজীবী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল৷ তিনি জানান, সময় মতো আবেদন করা হবে৷ আর তার চিকিৎসার জন্যই মুক্তির মেয়াদ বাড়ানো প্রয়োজন৷

কিন্তু দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম মনে করেন, ‘‘সরকার বিষয়টি আদালতকে জানালে ভালো হতো৷ সরকার নির্বাহী সিদ্ধান্তে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়েছে৷ কিন্তু তিনি দুদকের মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত৷ সরকার তাকে মুক্তি দেয়ায় আইনের কোনো ব্যত্যয় ঘটেছে৷ আইনে আদালতকে অবহিত করার একটি বিধান আছে৷ তার যদি মুক্তির মেয়াদ সরকার আবার বাড়ায় তাতে আমাদের আপত্তি নেই, খালেদা জিয়ার প্রতি আমাদের কোনো বিরাগ নাই৷’’ তবে সেটা আদালতকে জানিয়ে করলে ভালো হয় বলে মনে করেন তিনি৷

আর আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেন, ‘‘খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ এখনো শেষ হয়নি৷ তার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানের জন্য কোনো আবেদনও করা হয়নি৷ যখন আবেদন করা হবে তখন আমরা দেখব৷’’

চিকিৎসকেরা জানান খালেদা জিয়ার হাত ও পায়ের সমস্যা আগের মতই আছে৷ ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখা কঠিন হয়ে পড়ছে৷ বিএসএমএমইউর প্রতিবেদনেও তার একই সমস্যার কথা বলা হয়েছে৷ তিনি নিজে থেকে চলাফেরা করতে পারেন না৷ এমনকি পানিও নিজে উঠে খেতে পারেন না বলে চিকিৎসকরা জানান৷ খালেদা জিয়ার পরিবারে সদস্যরা তাই এখন দেশের বাইরেই তার চিকিৎসা চান৷

খালেদা জিয়ার জন্মদিন:
খালেদা জিয়ার জন্মদিন কীভাবে পালিত হবে সে সিদ্ধান্ত এখনও নেওয়া হয়নি বলে জানান বিএনপির চেয়ারপার্সনের মিডিয়া উইং-এর সদস্য শায়রুল কবির খান৷ তিনি বলে, ‘‘খালেদা জিয়ার গত জন্মদিনে মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছিল সারাদেশে দলীয় কার্যালয়ে৷ আনুষ্ঠানিকভাবে কেক কাটা হয়নি৷’’ দলীয় সূত্র জানায়, এবারের আয়োজন একই রকম হতে পারে৷

সূত্র : ডয়চে ভেলে

Please Share This Post in Your Social Media

আরও সংবাদ পড়ুন

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৩৩,২৭৩,৬২৭
সুস্থ
২৪,৫৮৩,০৭০
মৃত্যু
১,০০১,৫৪৩

বাংলাদেশে কোরোনা

মোট

১৭৮,৪৪৩

জন
নতুন

২,৯৪৯

জন
মৃত

২,২৭৫

জন
সুস্থ

৮৬,৪০৬

জন
© All rights reserved © 2019 ongkur24.com
Design & Developed By: NCB IT
112233